এক লাখ পরিবারে স্যামসাং পণ্য পৌঁছে দিলো ইভ্যালি

গত পাঁচ মাসে দেশের অন্তত এক লাখ পরিবারে স্যামসাং ব্র্যান্ডের টিভি, ফ্রিজ, ওয়াশিং মেশিন এবং এসিসহ বিভিন্ন ধরনের কনজিউমার ইলেকট্রনিক্স পণ্য পৌঁছে দিয়েছে দেশীয় ই-কমার্স মার্কেটপ্লেস ইভ্যালি।  ইভ্যালির গ্রাহকেরা হোম ডেলিভারিতে স্যামসাংয়ের পণ্য বুঝে পেয়েছেন।

ইভ্যালি এবং বাংলাদেশে স্যামসাং পণ্যের উৎপাদক ও পরিবেশক ফেয়ার ইলেকট্রনিক্স সূত্রে তথ্য নিশ্চিত করেছে।

ইভ্যালির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী মোহাম্মদ রাসেল বলেন, ‘বিশ্বব্যাপী করোনার এই সময়ে মানুষের কাছে যখন ঘরের বাহিরে বের হয়ে তার পছন্দের পণ্যটি কেনা কষ্টকর হয়ে পরে তখন তারা খুব সহজেই ঘরে বসে তার প্রয়োজনীয় পণ্যটি ইভ্যালিতে অর্ডার করে সংগ্রহ করতে পেরেছে। গত পাঁচ মাসে ইভ্যালি ও ফেয়ার ইলেকট্রনিক্স মিলে অন্তত এক লাখ ইউনিট পণ্য গ্রাহকদের কাছে পৌঁছে দিতে সক্ষম হয়েছে। ’

ফেয়ার গ্রুপের প্রধান বিপণন কর্মকর্তা (সিএমও) মোহাম্মদ মেসবাহউদ্দিন বলেন, ‘বাংলাদেশে স্যামসাং মোবাইল এবং ইলেকট্রনিক্সের গর্বিত উৎপাদক ফেয়ার ইলেকট্রনিক্স। বাংলাদেশে উৎপাদিত পণ্য সবাই যেভাবে নিজেদের করে নিয়েছেন আমরা তার জন্য ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই। গত পাঁচ মাসে আমরা  ইভ্যালির মাধ্যমে গ্রাহকদের ঘরে এক লাখ ইউনিট স্যামসাং পণ্য পৌঁছে দিতে সক্ষম হয়েছি।’

ফেয়ার গ্রুপের চীফ ফিনান্সিয়াল অফিসার (সিএফও) কাজী নাসির উদ্দীন বলেন, ‘ইভ্যালির মাধ্যমে স্যামসাং পণ্যের আরও অর্ডার পাচ্ছি আমরা। সেগুলোও ধাপে ধাপে সরবরাহ করছি। গ্রাহক সন্তুষ্টির কথা বিবেচনা করে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে ডেলিভারি সম্পূর্ণ করার লক্ষ্যে ইভ্যালি ও ফেয়ার ইলেকট্রনিক্স একযোগে কাজ করে যাচ্ছে।   আমাদের প্রত্যাশা, একসময় দেশের প্রতিটি ঘরে ইভ্যালির মাধ্যমে স্যামসাংয়ের পণ্য পৌঁছে দেবে ফেয়ার ইলেকট্রনিক্স।’

 

Arrow