Brand Practitioners Logo
Walton is a Bangladeshi conglomerate based in Gazipur, Bangladesh
Let’s talk! 01611300003

Do You Know What is Electrolyte Drink?

SMC Plus নামে একটা নতুন ইলেক্ট্রোলাইট ড্রিংক বাজারে এসেছে। কথা হচ্ছে কতজন Electrolyte শব্দটা সম্পর্কে জানি? এই ড্রিংক কি শুধুমাত্র একটা জুস?

এই প্রশ্নগুলো কেন করলাম তার আগে আমার ছোট একটা এক্সপেরিয়েন্স শেয়ার করি। আমি সাধারণত বাজারে কোনো প্রোডাক্ট আসলেই নেড়ে চেড়ে দেখতে পছন্দ করি প্রোডাক্টটা কার, প্যাকেজিং কেমন, বাজারজাত করণের ধরণ, প্রোডাক্টের রকমফের ইত্যাদি। যেহেতু প্রোডাক্টটি SMC এর, তাই আগ্রহ নিয়ে হাতে নিলাম আর ইলেক্ট্রোলাইট ড্রিংক্স সম্পর্কে জ্ঞান থাকা সত্বে একটু নেড়ে চেড়ে দেখছিলাম। এর মধ্যেই দোকানী বলে উঠলো, "ভাইয়া, নতুন জুস- খুব ভাল। খাইয়া দেখতে পারেন।" তার দিকে তাকায় মনে হলো বেচারা এস আর তাকে অনেক কষ্টেই গছায় দিয়ে গেছেন!

এবার আসল কথায় আসি, নরমালি ইলেক্ট্রোলাইট ড্রিংক গুলোর মধ্যে আমার বাইরের স্পোর্টস ড্রিংক বা আইসোটনিক ড্রিংকগুলো বেশ ভাল লাগে। যেমন গ্যাটোরেড কিংবা ১০০প্লাস। মালয়েশিয়াতে থাকতে প্রচুর পরিমানে ১০০প্লাস খাওয়া হতো। ডিহাইড্রেশন রুখতে আর অনেক বেশি তাপমাত্রা থাকার কারণে ঐ একটা ড্রিংক্সই ছিল আমার সবচেয়ে পছন্দের জিনিস। মালয়েশিয়াতে এই ড্রিংকটা বেশ জনপ্রিয়। কেন জানেন? সেখানে আপনি টুক টাক কোনো জ্বর কিংবা ডায়রিয়াতে আক্রান্ত হলে সেখানকার ক্লিনিক থেকে আপনাকে ১০০প্লাস খাওয়ার জন্য সাজেস্ট করে। আর এভাবেই এই ড্রিংকটা অনেক বেশি জনপ্রিয় হয়েছে সেখানে। Word of Mouth ক্রিয়েট হয়েছে, মানুষের ভরসা জিতেছে।

যদি ভুল না করি, এর আগে বাংলাদেশে আরেকটি এমন ড্রিংক বাজারে এসেছিল। নাম ছিল কর্নিয়া আইসোটনিক ড্রিংক। কিন্ত মাঠ পর্যায়ে খুব বেশী সাড়া না পাওয়ায় বিলীন হয়ে যায়। হয়ত আমি দায়ি করবো সময় এবং কাস্টমার সেগমেন্ট। সে সময়টা ছিল স্পীড এবং টাইগারের। আর এই আইসোটনিক ড্রিংটা মার্কেটে এসেছিল এনার্জি বুস্টার হিসেবে।

যাই হোক, SMC Plus এর জন্য এই সময়টা খুবই গুরুত্বপূর্ন। গ্রীষ্মের এই দাবদাহে মানুষ যখন নাকাল, তখন খুব সুন্দর ভাবে মানুষের পাশে এসে দাড়াতে পারে SMC Plus. শুধুমাত্র টেট্রা প্যাকে না এনে, পেট বোতলে ৫০০ এম এল এর এই ড্রিংক অনেক বেশি আলোড়ণ তুলবে বলেই আমার বিশ্বাস। আর SMC এর ডিস্ট্রিবিউশন সম্পর্কে তো কোনো কথাই হবে না, তাই শুধুমাত্র একটু কাস্টমার সচেতনের মাধ্যমেই পুরো মার্কেট ধরে ফেলা যাবে। টেট্রাপ্যাক থেকে কেনো বের হতে বলছি তার কারণ হচ্ছে, বাংলাদেশের মানুষ টেট্রাপ্যাক বলতেই বুঝে বাচ্চাদের জুস। আর পেট বোতল হলে মানুষ ব্যাগে ক্যারি করতে পারবে, ইলেক্ট্রোলাইসিস হলে এই ইলেক্ট্রোলাইটিক ড্রিংকটা খেতে পারবে, গরমে তৃপ্তি পাবে।

Arrow